নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » আয় বেশি কাশেম’র, ভূমিহীন খনি রঞ্জন

আয় বেশি কাশেম’র, ভূমিহীন খনি রঞ্জন

diginal-uz-coverখাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে হলফনামায় দেয়া তথ্য মতে, প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীদের মধ্যে আয় বেশি আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজি মোঃ কাশেমের। আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী খনি রঞ্জন ত্রিপুরার কোন জায়গা-জমি নাই। স্বর্ন বেশি নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী গোপা দেবী চাকমার। অপর নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আফরোজা বেগমের পেশা জনপ্রতিনিধি, তবে তিনি সকল প্রার্থীর চেয়ে বেশি জমির মালিক। ৩১ মার্চ দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হচ্ছে। ৬৫ হাজার ৮৭৪ ভোটারের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মুখোমুখি হয়েছেন ভোটের মাঠে।
প্রার্থীদের হলফনামায় দেওয়া তথ্যমতে, হাজি মো: কাশেম ব্যবসায়ী। তিনি খাদ্য-শস্যের ব্যবসা করেন; বাৎসরিক আয় ৫ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে আয়ের দিক থেকে দ্বিতীয় পর্যায়ে রয়েছেন প্রিয়দর্শী চাকমা। তিনি ডেইরি ফার্ম থেকে আয় করেন ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা। খনি রঞ্জন ত্রিপুরার পেশাও ব্যবসা; আয় ২ লাখ টাকা তবে তার কোন জায়গা-জমি নাই। এছাড়া চেয়ারম্যান প্রার্থী মেরুং ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মোশারফ হোসেন স্বাক্ষরজ্ঞান সম্পন্ন এবং বোয়ারখালী ইউপি চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা ওরফে কালাধন অক্ষরজ্ঞান সম্পন্ন।

নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী গোপা দেবী চাকমা মৌজা প্রধান (হেডম্যান)। তাঁর স্বর্ন আছে ১২ ভরি এবং রূপা আছে ১৫ ভরি। আরেক নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আফরোজা বেগমের পেশা জন প্রতিনিধি। তিনি মেরুং ইউপির নারী সদস্যা। সরকার থেকে প্রাপ্ত ভাতায় তাঁর বাৎসরিক আয় ২২ হাজার টাকা। তবে তাঁর নিজ নামে জমি রয়েছে ১১ একর ৩০ শতক। এছাড়া তাঁর স্বামীর নামে আছে আরো ৩০ একর জমি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বেইলি সেতু ভেঙে রাঙামাটি-বান্দরবান সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় রাঙামাটি-বান্দরবান প্রধান সড়কের সিনামা হল এলাকার বেইলি সেতু ভেঙে পাথর বোঝাই ট্রাক …

Leave a Reply