নীড় পাতা » পৌরসভা নির্বাচন ২০১৫ » ‘আমিতো দলেই নাই,আমাকে বহিষ্কার করবে কি করে ?’

‘আমিতো দলেই নাই,আমাকে বহিষ্কার করবে কি করে ?’

amar-da‘৩৬ বছর দলের জন্য অনেক সেক্রিফাইস করেছি,নিজের জন্মভূমি থেকে উচ্ছেদ হয়েছি,সব ফেলে বাঘাইছড়ি চলে গিয়েছিলাম,কিন্তু দলের কাছ থেকে কি পেলাম ?
আমিতো গত আট নয় মাস যাবৎ দলের কোন কর্মসূচীতে যাচ্ছিনা। দল থেকে বহিষ্কার করলেও আমি নির্বাচন থেকে সড়ে যাবোনা। দল করে অনেক নির্যাতন সয়েছি,কষ্ট পেয়েছি।’ কিন্তু যখন বুঝলাম দল নমিনেশন দিবেনা,তাই দল থেকে নমিনেশন চাইনি। আমি নিশ্চিত ছিলাম আমাকে মনোনয়ণ দিবেনা,তাই স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচন করতে মাঠে নেমেছি। প্রয়োজনে দল থেকে পদত্যাগ করতেও আমি রাজি। কিন্তু কোন চাপের কাছেই মাথা নত করব না আমি।’

দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম ও পাহাড়টোয়েন্টিফোর ডট’তে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী অমর কুমার দে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম ও পাহাড়টোয়েন্টিফোর ডট কম এর স্টাফ রিপোর্টার মিশু দেসাইফুল বিন হাসান

নির্বাচন করা কি দলের সাথে ‘অভিমানী সিদ্ধান্ত’ কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘আমি চিরকুমার,আমি ছোটবেলা থেকেই সামাজিক কাজ কর্ম করেই এসেছি,তারই অংশ হিসেবে জনসেবার জন্যই নির্বাচন করছি। আমার বিশ্বাস,মানুষ আমাকে নির্বাচিত করবে। আমি দীর্ঘদিন দলের সাথে থেকেছি,সামাজিক ও ধর্মীয় কাজে অংশ নিয়েছি,আমার মতো অসংখ্য মানুষ সারাদেশেই দলের বাইরে থেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে,আমিও মনে করি আমার সুযোগ আছে নির্বাচিত হওয়ার।’

অমর কুমার দে বলেন, ‘আমি পূজা উদযাপন পরিষদের সাইনবোর্ড ব্যবহার করে নির্বাচন করছিনা,আমি সারাজীবন যে সামাজিক কাজ করেছি,মানুষ তারই মূল্যায়ন করবে বলে মনে করি আমি। আমার বিরুদ্ধে তো কোন অভিযোগ নেই। আমি জেনে বা বুঝে কখনো কারো কোন ক্ষতি করিনি। মানুষতো এর মূল্যায়ন করবে।’

‘জেলা পরিষদের সদস্য হওয়া, না হওয়ার সাথে নির্বাচনের কোন সম্পর্ক নেই’- মন্তব্য করে তিনি বলেন,‘যারা আমার প্রতিপক্ষ তারাই আমার বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার করছে। আমি তো রাজনীতি করে কাউকে ঠকাইনি,টেন্ডারবাজি বা সন্ত্রাস করিনি, বরং আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বারবার হামলার শিকার হয়েছে,ভাংচুর হয়েছে। আমি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়েছি,কিন্তু কোনদিন কারো উপর প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করিনি। তাই কোন অনুরোধেই নির্বাচন থেকে সরার প্রশ্নই আসেনা। আমিতো দলেই নাই,আমাকে বহিষ্কার করবে কি করে !
‘২০১২ সালের ৪ মে আমি আওয়ামীলীগের জেলা কমিটি থেকে আমি কাগজে কলমে পদত্যাগ করেছি’ জানিয়ে অমর কুমার দে বলেন, ‘দলের আদর্শগত মতের অমিলের কারণে। সেই সময় আমার পদত্যাগ গৃহীত হয়নি। নতুন কমিটি গঠনের সময়ও আমি বলেছি আমাকে কমিটিতে না রাখতে,তারপরও তারা আমাকে কমিটিতে রেখেছে কিন্তু আমিতো অভিষেক অনুষ্ঠানেও যাইনি।’

অভিমানী এই নেতা আরো বলেন,‘আওয়ামীলীগ করে আমার মন ভেঙ্গে গেছে,আমার কারো উপর কোন অভিমান নেই। দলে যারা আছে তাদের সাথে সামাজিক সম্পর্ক আছে, কিন্তু রাজনৈতিক সম্পর্ক নেই। সবার সাথে সুসম্পর্ক আছে,সেটা থাকবে। দলে না থাকলেও সেই সম্পর্ক সারাজীবনই থাকবে।’

‘চাপ আছে কিন্তু এখনো কোন পর্যায় থেকে হুমকি পাইনি। আমাকে দলের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হচ্ছে,এটা সত্য। কিন্তু আমি কোন কারণেই নির্বাচন থেকে সরে যাবনা।

‘কে জয়ী বা হবে পরাজিত হবে সেটা নিয়ে আমি ভাবছি না,আমি আমার নিজের বিজয় নিয়েই ভাবছি। আর এই মুহুর্তে আমি নির্বাচন থেকে সরে গেলে মানুষ ভাববে, আমি টাকা খেয়ে নির্বাচন থেকে সরে গেছি।’

‘আমার কারণে কেনো নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হারবে ? আমি কি দলের প্রভাবশালী কোন নেতা ? আওয়ামীলীগের নেতাদের কারো কারো আচরণে মনে হয় আমি যেনো ‘গৃহপালিত জন্তু’। এতোদিন সব সহ্য করেছি নৌকার স্বার্থে,কিন্তু ধৈর্য্যরে বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ার পর আর সেখানে থাকা সম্ভব ছিলোনা। তাই আমি জাস্ট সরে গেছি। আমার কারনে কেনো নৌকা হারবে? আমি সামান্য মানুষ,কারো জয় পরাজয়ে আমি কিইবা ভূমিকা রাখতে পারি।’

চিরকুমার এই নেতা বলেন, ‘ ১৯৭৯ সাল থেকে ছাত্রলীগের মাধ্যমে আমি আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে পদার্পন করি। ছাত্রলীগের সদস্য,জেলা যুবলীগের সহসভাপতি,১৯৯১ সালে আওয়ামীলীগ শহর শাখার প্রচার সম্পাদক,১৯৯৫ সাল থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত আওয়ামলীগ শহর শাখার সাধারন সম্পাদক ছিলাম,এর পর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য থেকে এখন উপ প্রচার সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করছি।’

‘পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা হিসেবে নয়, কিংবা দলীয় পরিচয়ে নয়, ব্যক্তি অমর কুমার দে’র সারাজীবনের শ্রম আর কাজের মূল্যায়ন করবে রাঙামাটির মানুষ,এমন প্রত্যাশার কথা জানিয়ে অমর কুমার দে বলেন, আমি জয়ের জন্যই লড়ছি,আশা করছি বিজয়ী হবো। রাঙামাটিবাসির দোয়া ও আশীর্বাদ চাই।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply