নীড় পাতা » বান্দরবান » অপহৃত নেতার মুক্তির দাবিতে সরকারি দলের অবরোধ !

অপহৃত নেতার মুক্তির দাবিতে সরকারি দলের অবরোধ !

Bandarban-Oborod-PiC_01বান্দরবানের উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক মংপ্রু মারমা (৩৯) কে অস্ত্রের মুখে জেএসএস সন্ত্রাসীদের অপহরণের অভিযোগ এনে এর প্রতিবাদে আওয়ামীলীগের ডাকে অনির্দিষ্টকালের সড়ক ও নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি চলছে। বুধবার সকাল থেকে এ কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

সকাল থেকেই জেলা আওয়ামীলীগসহ সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা শহরের ট্রাফিকমোড়, বাসস্ট্যান্ড এবং বান্দরবান-কেরানীহাট প্রধান সড়কের সূয়ালকসহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে এবং গাছ-সাইনবোর্ড ফেলে রেখে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে পিকেটিং করে অবরোধ কর্মসূচি পালন করছে। অবরোধের কারণে বান্দরবানের সাত উপজেলায় সবধরণের যানবাহন এবং নৌ চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে রমজানের কারণে সবধরনের দোকানপাট এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অবরোধের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে। এদিকে অবরোধের কারণে বান্দরবান বাসস্ট্যান্ডসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে আটকা পড়েছে অসংখ্য যাত্রী।

জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম চৌধুরী জানান, আওয়ামীলীগ নেতা সুস্থ শরীরে জীবিত অবস্থায় ফিরে না পাওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের অবরোধ কর্মসূচি চলবে। কিন্তু রমজানের কারণে সবধরনের দোকানপাট এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অবরোধের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে।Bandarban-Oborod-PiC_02

প্রসঙ্গত: সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেএসএস কর্মীরা গত সোমবার রাতে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক মংপ্রু মারমা (৩৯) কে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায় বলে দল থেকে অভিযোগ করা হয়। অপহরণের প্রতিবাদে মঙ্গলবার জেলা শহরে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করেছে আওয়ামীলীগ। কর্মসূচি থেকে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্যশৈহ্লা মারমা আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত মংপ্রুকে সুস্থ শরীরে মুক্তি দেয়া না হলে বুধবার থেকে বান্দরবানে অনির্দিষ্টকালের সড়ক ও নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা দেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জুরাছড়িতে গুলিতে নিহত কার্বারির ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় স্থানীয় এক কার্বারিকে (গ্রামপ্রধান) গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী সন্ত্রাসীরা। রোববার …

Leave a Reply