নীড় পাতা » ব্রেকিং » আইসোলেশনে থাকা মৃত ব্যক্তি ‘করোনা আক্রান্ত’ ছিলেন না

রাঙামাটিতে

আইসোলেশনে থাকা মৃত ব্যক্তি ‘করোনা আক্রান্ত’ ছিলেন না

করোনা উপসর্গ নিয়ে রাঙামাটির জেনারেল হাসপাতালে আসার পর আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় সোমবার ভোররাতে মারা যাওয়া সেই ব্যক্তির করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ এসেছে বলে নিশ্চিত করেছেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ। জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, এটা নিয়ে আমরা খুবই টেনশনে ছিলাম। রিপোর্ট হাতে পাওয়ায় এই মুহুর্তে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছি। তবে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে এবং সরকারের নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।’

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনাবিষয়ক দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎক ডা. মোস্তফা কামালও বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমার করোনা সন্দেহে তার চিকিৎসায় সম্পৃক্ত সকল নার্স ও স্টাফদের গতকাল ও আজ রিপোর্ট আসার আগমুহুর্ত পর্যন্ত একটা নির্দিষ্ট স্থানে রেখেছিলাম। আমরাও খুব টেনশনে ছিলাম পুরো বিষয়টি নিয়ে। এখন হাফ ছেড়ে বাঁচলাম।

গত বোববার শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা নিয়ে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন শহরের রূপনগর এলাকার এক ব্যক্তি। তার লক্ষণসমূহ করোনা উপসর্গ মনে হওয়ায় তাকে তাৎক্ষনিক আইসোলেশনে রাখা হয়। ওইদিন ভোররাতে মারা যান তিনি।

ওই ৫৫ বছর বয়সী ব্যক্তিকে সোমবার বিকালে রাঙামাটির টিভি উপকেন্দ্রের পাশে সরকারি ব্যবস্থাপনায় করোনা রোগির মতোই দাফন করা হয়। পুরো দাফন কার্যক্রমটি মনিটর করেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) উত্তম কুমার দাশ। তিনি জানিয়েছেন, ইসলামি ফাউন্ডেশনের চারজন কর্মকর্তা কর্মচারী, একজন ইমাম এবং জেলা প্রশাসনের কুইক রেসপন্স টিমের আবু বকর লিটন ও আহছাবউদ্দিন মৃতদেহ দাফন কাফনের কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন। তার পরিবারের কেউ ছিলেন না।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

মহালছড়িতে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মনাটেক গ্রামে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুর আড়াইটায় মনাটেক …

Leave a Reply