নীড় পাতা » বান্দরবান » আইন-শৃঙ্খলা সভায় মাদক, চোরাইকাঠ ও জুয়ার বিরুদ্ধে অভিযান দাবি

নাইক্ষ্যংছড়িতে

আইন-শৃঙ্খলা সভায় মাদক, চোরাইকাঠ ও জুয়ার বিরুদ্ধে অভিযান দাবি

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলা মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন কচি। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. শফিউল্লাহ।

আইন শৃঙ্খলা সভায় বক্তারা বলেন, উপজেলার মানুষ বর্তমানে শান্তিতে ঘুমাতে পারছে। দলাদলি কমে গেছে। প্রশাসনের প্রতিটা সেক্টর উন্নয়নমুখী হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অন্যান্য উন্নয়নের পাশাপাশি উপবন পর্যটন লেককে নিজ সন্তানের মতো গড়ে তুলে পর্যটন শিল্পকে প্রসার ঘটাচ্ছেন। বিজিবির ১১ ও ৩৪ কর্তৃপক্ষ সীমান্ত সুরক্ষা ও মাদক উদ্ধারে সফলতা দেখাচ্ছেন। বিশেষ করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন আইন শৃঙ্খলারক্ষা ও মাদকের বিরুদ্ধে সফল অভিযান পরিচালনা করায় পরপর ৬ বার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হয়েছেন।

সভায় বক্তারা আরও বলেন, উপজেলার আনাচে-কানাচে অসংখ্য স-মিল আর ইট ভাটা তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে বাইশারী ও ঘুমধুমে এসব বেশী হচ্ছে। যাতে করে রাস্তা-ঘাট নষ্ট হচ্ছে। আর সর্বত্র পাহাড় কাটা হচ্ছে আশঙ্কাজনক হারে। তাই এসব অপতৎপরতার বিরুদ্ধে দ্রুত অভিযান শুরুর সিদ্ধান্ত হয় আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, এমপি প্রতিনিধি আলহাজ্ব খাইরুল বশর, নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মংলাওয়াই মার্মা, নারী ভাইস চেয়ারম্যান শামিমা আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান মেম্বার, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাঈনুদ্দিন খালেদ, সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল আবছার, বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলম কোম্পানী ও সোনাইছড়ির চেয়ারম্যান এ্যানিং মার্মা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. সিরাজুল হক, প্রবীণ সাংবাদিক (অবসরপ্রাপ্ত সেনা সার্জেন্ট) আব্দুল হামিদসহ কমিটির সদস্য ও সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্য বিভাগকে সুরক্ষা সামগ্রী দিলো রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাঙামাটির ১২টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রসমূহে স্বাস্থ্য …

Leave a Reply