নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » ‘অস্ত্র হাতে তুলে নেওয়ার হুমকিদাতাদের রাষ্ট্রদ্রোহিতার দায়ে গ্রেফতার ও বিচার দাবি’

‘অস্ত্র হাতে তুলে নেওয়ার হুমকিদাতাদের রাষ্ট্রদ্রোহিতার দায়ে গ্রেফতার ও বিচার দাবি’

jubofrontমঙ্গলবার রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তৃতাকালে যুব সমিতির জেলা সভাপতি নির্মল দেওয়ানসহ নেতৃবৃন্দ প্রকাশ্যে ‘সরকারকে রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে বিরত না হলে প্রয়োজনে সরকারকে বিরত রাখতে পূর্বের ন্যায় অস্ত্রের ভাষা ব্যবহার করা হবে এবং অস্ত্র হাতে তুলে নেওয়ার জন্য উপজাতীয় যুব ও ছাত্রদের প্রস্তুত থাকার জন্য নির্দেশ দেন’ বলে অভিযোগে করেছে পার্বত্য যুব ফ্রন্ট নামের বাঙালীভিত্তিক একটি সংগঠন।

সংগঠনটির পক্ষ থেকে মঙ্গলবার বিকেলে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, একই রাষ্ট্রে বসবাস করে রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য রাষ্টদ্রোহীর সামিল। এই ধরনের রাষ্ট্রদ্রোহী বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাল করে এক বিবৃতিতে বলা হয়, বিগত সময়ে ৩০ হাজার বাঙালী, সেনা সদস্য, বিজিবি সদস্য, পুলিশ ও আনসার ভিডিপি সদস্যসহ অসংখ্যা সরকারী কমকর্তা-কর্মচারীর খুনী সন্তো বাহিনীকে কোন বিচারের মুখোমুখী না করায় বরং শান্তি চুক্তির মাধ্যমে পুরস্কৃত করায় একের পর এক এধরনের রাষ্ট্রদ্রোহিতা মূলক বক্তব্য দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্ত পরিস্থিতিকে আবারো সেই পূর্বের ন্যায় অস্থিতিশীল করে রক্তের হুলিখেলায় মেতে উঠার পায়তারা করছে। যার ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামের নিরীহ জনগণকে আতংকিত করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। যার জলন্ত প্রমান ২২সেপ্টেম্বর রাতের আধাঁরে উপজাতীয় এক তরুনের মাধ্যমে গ্রেনেড হামলা।’

বিবৃতিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম কে শান্ত ও স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে অনতিবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার এবং রাষ্ট্রদ্রোহীতা মূলক বক্তব্য প্রদানকারীদের গ্রেফতার পূর্বক বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করা জরুরী বলেও মন্তব্য করে পার্বত্য যুব ফ্রন্ট নামের সংগঠনটি।
একই বিবৃতিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম তথা রাঙামাটি জেলায় অতিসত্বর মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এর কার্যক্রম এগিয়ে নেওয়ার জোর দাবি জানানো হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমণ কমছে

প্রশাসনের কঠোর নজরদারি এবং থানা পুলিশের তৎপরতায় রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমন হার কমছে। কাপ্তাই উপজেলা …

Leave a Reply