নীড় পাতা » ব্রেকিং » অবরোধ ঘিরে শহর জুড়ে চাপা উত্তেজনা

অবরোধ ঘিরে শহর জুড়ে চাপা উত্তেজনা

Birds-eye-view-of-Rangamatiরাঙামাটি মেডিকেল কলেজের ক্লাশ শুরুর দিন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের অবরোধ আর কয়েকটি সংগঠনের সেই অবরোধ প্রতিরোধের ঘোষণায় জেলাজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে চাপা উত্তেজনার।
অবরোধআহ্বানকারিরা প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে তাদের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী শহরে এনেছেন,এমন গুজবে আরো বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে শহরে।
ইতোমধ্যেই যেকোন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে শহরে সেনা,বিজিবি টহল শুরু হয়েছে। শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
মেডিকেল কলেজের পক্ষে বিপক্ষের কর্মসুচী নিয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠা দেখা দিয়েছে পুরো শহরেই।
তবে রাঙামাটি জেলা পিসিপি’র সভাপতি বাচ্চু চাকমা জানান, শান্তি চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজ স্থগিত রাখার দাবি জানিয়েছি। কিন্তু সরকার আমাদের কথায় কর্ণপাত না করে মেডিকেলের ক্লাশ শুরু করছে। তাই এর বিরোধীতা করে আমরা অবরোধ দিয়েছি। শনিবার সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ পালন করা হবে। অবরোধ শান্তিপূর্ণভাবেই পালিত হবে জানিয়ে তিনি বলেন,শান্তিপূর্ণ অবরোধে কোন বাধা দেয়া হলে পিসিপিও বসে থাকবেনা।
জেএসএস’র কেন্দ্রীয় সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সজীব চাকমা বলেন, পিসিপি যে কর্মসুচী দিয়েছে তার সাথে জেএসএস একমত। অবরোধ সফল করার জন্য যা যা করার তাই করবে পিসিপি। জেলার বাইর থেকে নেতাকর্মী শহরে আনার বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না বলে জানান।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন বলেন, পিসিপিকে অবরোধ প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছি। তারা যদি আমাদের আহবানে সাড়া না দেয়। তবে তাদের অবরোধ প্রতিরোধে মাঠে থাকবে ছাত্রলীগ। তাদের অগনতান্ত্রিক কর্মসুচী কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম সম-অধিকার আন্দোলন রাঙামাটি জেলা সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবছার আলী জানান, শনিবার মেডিকেল কলেজের ক্লাশ শুরু হচ্ছে এজন্য পার্বত্যাবাসীর পক্ষ থেকে সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। তবে এটার বিরোধীতা করে যদি কোনো মহল বিশৃঙ্খলা করতে চায়, তার সমুচিত জবাব দেয়ারও হুঁশিয়ারী দেন তিনি।
রাঙামাটি মেডিকেল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম মুন্না বলেন, শনিবার মেডিকেল কলেজের ক্লাশ শুরুর অনুষ্ঠানে আমরা উপস্থিত থাকবো। ইতোমধ্যে বিজয় মিছিল করা হয়েছে। পিসিপি’র অবরোধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কারা কি করলো তা দেখার বিষয় নয়। মেডিকেলের কার্যক্রম শুরুর ব্যাপারে যা যা করার দরকার তার সবকিছুই করবে সংগ্রাম পরিষদ।
রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর জানান, শনিবার প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মেডিকেল কলেজের উদ্বোধন করবেন। পিসিপির অবরোধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ছাত্রলীগ যে কর্মসুচী দিয়েছে তাতে আওয়ামীলীগসহ সকল অঙ্গ সংগঠন একমত। কেউ যাতে বিশৃঙ্খলা করতে না পারে সেজন্য আমরা আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীকে অবহিত করেছি।
রাঙামাটির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার সাফিউল সরোয়ার বলেন,কাউকেই কোন নাশকতা করার সুযোগ দেয়া হবেনা। আইনশৃংখলা বাহিনী যেকোন অরাজকতা প্রতিরোধে প্রস্তুত আছে। কেউ যদি শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচী পালন করে,তাহলে কিছু করার নেই,তবে যেকোন ধরণের উস্কানি কিংবা নাশকতা কঠোর হাতে দমন করা হবে। এটা যেহেতু সরকারি প্রোগ্রাম তাই আমরা সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থাই নিচ্ছি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিবর্ণ পাহাড়ের রঙিন সাংগ্রাই

নভেল করোনাভাইরাসের আগের বছরগুলোতে এই সময় উৎসবে রঙিন থাকতো পাহাড়ি তিন জেলা। এই দিন পাহাড়ে …

Leave a Reply