নীড় পাতা » পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়া » ‘অতীতে যদি ভাল কিছু করে থাকি তাহলে আবারো নৌকায় ভোট চাই’

‘অতীতে যদি ভাল কিছু করে থাকি তাহলে আবারো নৌকায় ভোট চাই’

dipankar-12রাঙামাটি আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী দীপংকর তালুকদার ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগনের কাছে আবারো নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার আহবান জানিয়ে বলেছেন, চুক্তির মাধ্যমে পার্বত্যাঞ্চলে শান্তির সুবাতাস বইছে। আওয়ামীলীগ সরকার পাহাড়ের উন্নয়ন ও শান্তির জন্য ব্যাপক কাজ করেছে। এই ধারা অব্যাহত রাখতে পুনরায় নৌকাকে নির্বাচিত করতে তিনি দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। রবিবার সন্ধ্যায় লংগদু উপজেলার মাইনীমুখ বাজারে নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে দীপংকর তালুকার একথা বলেছেন। মাইনীমুখ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ মুছা মাতব্বর, সহ সভাপতি মাহাবুবুর রহমান, জেলা যুবলীগের সভাপতি আকবর হোসেন চৌধুরী। এছাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল বারেক সরকার, আব্দুর রব ফরায়েজি, মাহাফুজুর রহমান, লংগদু উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ জানে আলম, গুলশাখালি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম, শাহ নজরুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

দীপংকর তালুকদার বলেন, চুক্তির মাধ্যমে অধিকার বঞ্চিত পাহাড়ীরা অধিকার পেয়েছে,তার মানে এই নয় যে বাঙালীদের অধিকার খর্ব করা হয়েছে। চুক্তির আগে বিরাজমান পরিস্থিতির কারনে পাহাড়ীরা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে উদ্বাস্তু হয়েছে তেমনি বাঙালীরাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সুতরাং উদ্ভাস্তু পুনর্বাসনের তালিকায় বাঙ্গালীদের তালিকাও দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন বিগত দিনে আওয়ামীলীগ স্থানীয় উন্নয়নে কি অবদান রেখেছে তা যাচাই করে দেখবেন। যদি অতীতে ভাল কিছু করে থাকি তাহলে আবারো নৌকায় ভোট চাই।
দীপংকর তালুকদার বলেন, আমার রাজনৈতিক ও নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বি বন্ধুরা সবসময় জনগনকে বিভ্রান্তিমূলক ব্যাখ্যা দিয়ে আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তিনি নৌকা মার্কায় ভোট দিতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের উৎসাহিত করার জন্য সমাবেশে উপস্থিত সবার প্রতি অনুরোধ জানান।dipankar-011

Micro Web Technology

আরো দেখুন

মহিলা কাউন্সিলর হলেন জোসনা-নির্মলা ও জুবায়তুন

রাঙামাটি পৌরসভার ৯ ওয়ার্ডকে তিনভাগে বিভক্ত করে সৃষ্ট তিনটি নারী ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হিসেবে যথাক্রমে নির্বাচিত …

Leave a Reply